মণিরামপুর খাদ্য কর্মকর্তার নির্দেশে ভাইভাই মিলে চাল আনলোড – জবানবন্দি

0
414

নিজস্ব প্রতিবেদক : মণিরামপুরের চাল কালোবাজারির মামলায় আটক দুইজন আাদলতে স্বীকারোক্তি জবানবন্দি দিয়েছে। সিন্ডিকেটের কাছ থেকে ক্রয়কৃত এ চাল ট্রাক চালক মণিরামপুর খাদ্য কর্মকর্তার নির্দেশে ভাইভাই মিলে আনলোড করছিল বলে জানিয়েছে তারা। আসামিরা হলো মণিরামপুরের বিজয়রামপুরের মৃত লুৎফর রহমানের ছেলে ভাই ভাই রাইচ মিলের মলিক আব্দুল্লাহ আল মামুন ও খুলনা দৌলতপুরের সাহেববাড়ির রতন হাওলাদারের ছেলে ট্রাক চালক ফরিদ হাওলাদার। মঙ্গলবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিসেট্রট আদালতের বিচারক শম্পা বসু আসামিদের জবানবন্দি গ্রহণ শেষে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।
জবানবন্দিতে ট্রাক চালক ফরিদ হাওলাদার জানিয়েছে, গত ৩ মার্চ খুলনা মলিকতলা খাদ্য গুদাম থেকে সরকারি চাল লোড দিয়ে রাতে মণিরামপুর খাদ্য গোদামে পৌছায়। পর দিন সকালে ওই গুদামের এক কর্মকর্তা চালের চালান-পত্র রেখে দিয়ে একটি কাগজে আব্দুল্লাহ আল মামুনের নাম ও মোবাইল নম্বর দিয়ে দেন। এরপর তার সাথে যোগাযোগ করে তার চাতালের গোডাউনে চাল আনলোড করার সময় পুলিশ তাকে আটক করে।
ভাই ভাই মিলের মালিক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানিয়েছে, সে দীর্ঘ দিন ধরে চালের ব্যবসা করে। মার্চ মাসে সে শহিদুল ও জগদীসের কাছ থেকে কাজের বিনিময় খাদ্য কর্মসূচীর ৩৭ টন চাল ক্রয় করে। এরমধ্যে তারা আগে ২১ টন চাল দিয়েছিল। বাকি ৫৫৫ বস্তা চাল ৪ মার্চ মণিরপুরের খাদ্য গুদাম থেকে ডেলিভারি দেয়। খাদ্য কর্মকর্তা মণিরুজ্জামান চালানের মাধ্যমে ওই চাল বুঝিয়ে দেয়। শহিদুল ও জগদীস সিন্ডিকেটের মাধ্যমে এ চাল ক্রয় করে বিক্রি করে। এর আগে এ সিন্ডিকেটের কাছ থেকে আরও ২ বার চাল কিনেছিল বলে জানিয়েছে আব্দুল্লাহ আল মামুন।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, মণিরামপুর থানার এসআই তপন কুমার সিংহ গোপন সংবাদে জানতে পারেন বিজয়রামপুরের ভাইভাই রাইচ মিলে সরকারি চাল ট্রাক থেকে নামানো হচ্ছে। তিনি বিষয়টি কতৃপক্ষকে জনিয়ে ঘটনাস্থলে যেয়ে মিল মালিক মামুন ও ট্রাক চালক ফরিদকে আটক করেন। এ চালের কোন বৈধ কোন কাগজপত্র তাদের কাছে ছিলনা। এরপর ওই ট্রাক থেকে ৫শ’৪৯ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। এ ব্যাপারে এআই তপন কুমার সিংহ বাদী হয়ে কালোবাজারির মাধ্যমে চাল মজুদের অভিযোগে আটক দুইজনসহ অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে মণিরামপুর থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিদর্শক শিকদার মতিয়ার রহমান আটক দুইজনকে আদালতে আদেশে ২ দিনের রিমান্ড শেষে গতকাল মঙ্গলবার আদালতে সোর্দ করেন। আদালতে তারা ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকারে ওই জবানবন্দি দিয়েছে।
মণিরামপুর খাদ্য কর্মকর্তার নির্দেশে ভাইভাই মিলে চাল আনলোড – জবানবন্দি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here