করোনায় চিকিৎসায় যশোর স্টেডিয়াম ছেড়ে দিতে প্রস্তুত জেডিএসএ

0
710

ডি এইচ দিলসান : করোনাভাইরাসের দাপটে জনজীবন বিপর্যস্থ। থমকে গেছে সবকিছু। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার রোধে দেশে চলছে অলিখিত জরুরী অবস্থা। মানুষকে ঘরে রাখতে দেশজুড়ে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। দায়িত্ব আছেন পুলিশ সদস্যরাও। দেশের এই ক্রান্তিকালে সাহায্য করতে প্রস্তত আছে যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থা। দরকার হলে করোনা চিকিৎসায় যশোর জেলা স্টেডিয়াম ছেড়ে দিতে রাজি আছে জেলার সর্বচচ ক্রীড়া নিয়ত্রক সংস্থাটি। মঙ্গলবার এমন তথ্যই দিয়েছেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব কবির। তিনি জানিয়েছেন, সরকার চাইলে করোনা চিকিৎসায় স্টেডিয়ামকে ব্যবহার করতে দেবেন তারা। তিনি বলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার অফিস রুম, আমেনা খাতুন প্যাভেলিয়ান ব্যবহার করে অনেক রুগির চিকিৎসা দেওয়া যাবে।
এ বিষয়ে ইয়াকুব কবির আরো বলেন, ‘এটা আমাদের দায়িত্ব। শুধ্ ুআমাদের না, যে সময় এসেছে তাতে সবারই সবার পাশে দাঁড়ানো উচিত বলে আমি মনে করি। বিশ্বব্যাপী করোনা যে ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেছে এবং এ দেশেও যে হারে ছড়িয়ে পড়ছে, তাতে আমাদের সরকারের যদি প্রয়োজন হয়, অবশ্যই আমরা যশোর স্টেডিয়াম রোগীদের চিকিৎসার জন্য দিয়ে দিব।’ করোনা প্রতিরোধে অন্যদের মতো করেই মানুষের পাশে থাকতে চায় জেলা ক্রীড়া সংস্থার প্রত্যেক সদস্য। যে কারণে এক হয়ে কাজ করার কথা জানিয়ে ইয়াকুব কবির আরও বলেন, ‘চিকিৎসার জন্য স্টেডিয়ামসহ আরো লজিস্টিক সাপর্ট দিতে প্রস্তুত আছি। না দেওয়ার কিছু নেই। আমাদের মনে রাখতে হবে এটি একটি বৈশ্বিক দূর্যোগ, যা মোকাবেলায় সবাইকে একাত্ম হয়ে কাজ করতে হবে।
এ ব্যাপারে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি এজেডএম সালেক বলেন, সাধারন সম্পাদকের কথায় সুর মিলিয়ে বলতে চাই যশোরের জেলা প্রশাসক চাইলে যে কোন সময় আমাদেও স্টেডিয়াম ব্যবহার করতে পারেন। আমরা করোনা রুগিদের জন্য এটি ছেড়ে দিতে প্রস্তুত। প্রয়োজনে আরো যা যা সহযোগিতা দরকার তাউ আমরা দিবো।
জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক এবিএম আখতারুজ্জামান বলেন, করোনার এই ভয়ানক ছোবল থেকে দেশকে রক্ষা করতে আমাদেও সবারই এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন আমাদের সাধারন সম্পাদকের সাথে আমরাও প্রস্তুত আছি, যে কোন সময় জেলা ক্রড়িা সংস্থার অফিসসহ গোটা স্টেডিয়ামকে হাসপাতাল তৈরিতে ছেড়ে দিবো।
উল্লেখ্য করোনা চিকিৎসায় কলকাতার ঐতিহাসিক ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়ামকে কোয়ারেন্টিন হিসেবে ব্যবহার করার প্রস্তাব দিয়েছেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও বিসিসিআইয়ের বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি। রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামকে কোয়ারেন্টিন সেন্টার বানানোর প্রস্তাব দিয়েছে হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনা আক্রান্ত— রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here