যশোর শহরের সার্কিট হাউজ পাড়ার দু’টি ছাত্রাবাসে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট

0
471

বিশেষ প্রতিনিধি : যশোর শহরের সার্কিট হাউজ পাড়ার দুটি ছাত্রাবাসে দুর্বৃত্ত্বরা হামলা চালিয়েছে। এসময় তারা মনির হোসেন নামে এক ছাত্রকে বেঁধে দুইটি ছাত্রাবাসের আসবাবপত্র ভাংচুর ও লুটপাট করেছে। পুলিশ উক্ত ছাত্রাবাস এলাকা থেকে একটি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করলেও ঘটনা জানেন না বলে জানিয়েছেন।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শহরের সার্কিট হাউজ পাড়ার শাহ আব্দুল করিম রোডের ১৮৯৩ নম্বর বাড়ির মাহমুদ হাসানের রোকেয়া পল্লী ছাত্রাবাস ও শামীম হোসেনের নুর আলম ছাত্রাবাসে সোমবার রাত আনুমানিক ৩টায় ৩/৪জন দুর্বৃত্ত্ব অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় নুর আলম ছাত্রাবাসের বাসিন্দা মনির হোসেনকে দূবৃর্ত্তরা বেঁধে ছাত্রাবাসের আসবাবপত্র, কম্পিউটার, ল্যাপটপ ভাংচুর করে। এ সময় খালিদের টেবিলের ড্র ভেঙ্গে ৭ হাজার টাকা লুট করে। পরে তারা রোকেয়া পল্লী ছাত্রাবাসে হামলা চালায়। সেখানে একই কায়দায় আসবাবপত্র, কম্পিউটার ও ল্যাপটপ ভাংচুর করে। এসময় মনির হোসেনের চিৎকারে ছাত্রাবাসের মালিকরা ওই রাতে ছুটে আসেন। এ ঘটনা থানায় জানালে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টায় পুলিশের একটি গাড়ি ঘটনাস্থল যায়। এসময় নুর আলম ছাত্রাবাস থেকে অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করে।
রোকেয়া পল্লী ছাত্রাবাসের মালিক মাহমুদ হাসান, নুর আলম ছাত্রাবাসের মালিক শামীম হোসেন রাতে দুর্বৃত্ত্বদের হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় চাঁচড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শাহাজাহান আহমেদ, পুরাতন কসবা ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মিলন কুমার মন্ডল, এবং কোতয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) শেখ তাসমীম আলম বিষয়টি জানেন না বলে সাংবাকিদের জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here