ছবি তুলেই ত্রাণ ফেরত নিলেন তারা

0
415

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের শার্শা উপজেলার পুটখালী ইউনিয়নের বালুন্ডা গ্রামে দুস্থ ও কর্মহীন মানুষ ত্রাণ দিয়ে ছবি তুলে আবার তা ফেরত নেওয়ায় এবং ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগে শত শত নারী-পুরুষ বিক্ষোভ করেছেন।
মঙ্গলবার বিকেলে ওই গ্রামের মাঝের পাড়ায় সুফিয়ার বাড়ির সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ জানিয়েছেন তারা।
বিক্ষোভকারীরা গণ মাধ্যম কর্মীদের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরিবের জন্য ত্রাণ পাঠালেও দ্বায়িত্ব পাওয়া গ্রামের এক শ্রেণির অসাধু ব্যক্তিরা বিভিন্ন কৌশলে তা আত্মসাৎ করছে। আমরা ২৫ দিন সরকারি ঘোষণা মেনে ঘরে থেকেছি, এখন খাদ্য অভাবে সামজিক দূরত্ব ভেঙে পেটের তাড়নায় রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করতে বাধ্য হচ্ছি।
বালুন্ডা গ্রামের বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী ফাহিমা সাংবাদিকদের জানান, সোমবার রাত আনুমানিক ১১.৪৫ টায় তার বাসায় ওই গ্রামের সফি ময়রা ও মিজানের নেতৃত্বে ৪/৫ জন তার বাসায় ঢুকে ঘুম থেকে তাদেরকে জাগিয়ে তোলে। পরে দরজা খুললে পাঁচ কেজি চালের একটা প্যাকেট ধরিয়ে তারা আমার পাশে দাঁড়িয়ে ছবি তুলে আমার হাত হতে তা কেড়ে নিয়ে চলে যায়। একই গ্রামের হোসেন এর স্ত্রী সুফিয়া, খলিলের স্ত্রী রুবিনা, ইয়াকুব আলী, আমির হোসেনসহ অনেকেই ত্রাণ বিতরণ অনিয়ম হচ্ছে বলে অভিযোগ জানিয়ে বলেন, চেয়ারম্যানের লোকেরা গরিবের ত্রাণ আতœসাৎ করছে।
এ বিষয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মেম্বার তব্বার বলেন, গ্রামবাসীর অভিযোগ সত্য। উপজেলা প্রশাসন হতে গত দুই দিন ধরে আমাকে ডাকছে ত্রাণ বিতরণ করতে। এর আগে আমার কাছে ত্রাণ বিতরনের কোন দায়িত্ব দেয়া হয়নি বা আমাকে কেউ ডাকেনি।
গ্রামবাসীর অভিযোগের বিষয়ে পুটখালি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাদীউজ্জামান মুঠোফোনে জানান, ওই এলাকায় ত্রাণ সুষ্ঠুভাবে দেয়া হয়েছে। তবে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে গোলযোগ বেঁধেছে শুনেছি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল বলেছেন, দিয়ে আবার ত্রান কেড়ে নেয়ার ঘটনাটি শুনেছি ও চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলেছি। অনিয়ম থাকলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here