যশোরে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদীর মৃত্যু

0
399

যশোর প্রতিনিধি : যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদী আছালত হোসেন (৫৫) নামে এক বন্দির মারা গেছে। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা গেছে বলে কারা কর্তৃপ জানান। আজ বুধবার ভোরের দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছালত মারা যান। কয়েদী আছালত ঝিনাইদহ জেলা সদরের গোপীনাথপুর পশ্চিমপাড়ার মৃত শমসের মণ্ডলের ছেলে। তিনি ঝিনাইদহ জেলার নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী। যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার তুহিনকান্তি খান জানান , ঝিনাইদহ জেলা কারাগার থেকে হোসেন আছালত নামে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় সাজাপ্রাপ্ত ওই বন্দিকে ২০০৮ সালের ১৮ মে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। ঝিনাইদহের আদালত জিআর ৩১/০৬ মামলায় তাকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছিলেন। আসামি প উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হন। পরে হাইকোর্ট মামলাটি পর্যালোচনা করে মৃত্যুদণ্ডের বদলে তাকে যাবজ্জীবন কারাভোগের আদেশ দেন। এর পর থেকে আছালত যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে (কয়েদি নম্বর ৭৩৩০/এ) ছিলেন। গত ৪ মে রাত নয়টার দিকে আছালত হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তখনই তাকে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওই রাতেই আছালতকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। আজ বুধবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। আছালতের ছোট ভাইয়ের স্ত্রী নার্গিস আলম মৃত্যুর খবর শুনে মরদেহ নিতে যশোর এসেছেন। তিনি দাবি করেন, একটি মামলায় আছালত কারা ভোগ করছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here