লোহাগড়ায় জমা-জমি সংক্রান্ত বিরোধে ১৫ বাড়িতে ভাংচুরসহ লুটপাট ॥ আহত ৩

0
354

লক্ষীপাশা(নড়াইল)প্রতিনিধি ॥ নড়াইলের লোহাগড়ার লাহুড়িয়া ইউপির ছায়মানারচর গ্রামে জমা-জমি সংক্রান্ত বিরোধে অন্তত ১৫টি বাড়িতে ভাংচুর সহ লুটপাট করেছে প্রতিপক্ষরা। সোমবার (১১মে) সন্ধ্যার পর এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগে জানা গেছে, লাহুড়িয়া ইউপির ছায়মানারচর গ্রামে জমা-জমি সংক্রান্ত বিরোধে সোমবার ইফতার পরেই (সন্ধ্যায়) ছায়মানারচর গ্রামের হিরু মোল্যা, নেপুর মোল্যা, ছালাম মোল্যা, ঝানু মোল্যা, জিল্লু মোল্যা, হাসিব মোল্যা, টুকু মোল্যা, আবুল মোল্যা, পান্নু মোল্যা, রাজা মোল্যা, উজির সরদার, সাহিদার সরদার, লুৎফর সরদার সহ অন্তত ৫০/৬০ জনে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলাসহ বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ছায়মানারচর গ্রামে মশিয়ার খান ও হিরু মোল্যা গ্রুপের মধ্যে জমা-জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল । প্রতিপক্ষরা লাহুড়িয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ
মশিয়ার খান সহ মোঃ আতিয়ার খান, মোঃ নজরুল খান, মোঃ রাশেদ খান, মোঃ মান্নান খান, নজীর খান, সাইদ মোল্যা, সুলতান মাস্টার, মোঃ মজিবর, মোঃ সত্তার মোল্যা, আরিফ মোল্যা ও সাবু মোল্যার বাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।
মেম্বর মোঃ মশিয়ার খান সহ ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, প্রতিপক্ষের লোকজন প্রায় ৫ লাখ নগদ টাকাসহ অনেক স্বর্ণালংকার, মূল্যবান আসবাবপত্র নিয়ে গেছে। এসময় মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, শোকেস, ড্রেসিং টেবিল, অটো ভ্যান, নসিমন গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। অন্তত ২১টি ঘরের টিনের বেড়া ভাংচুরসহ কুপিয়ে ব্যবহারের অনুপযোগী করা হয়েছে। মোট ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৫০ লাখ টাকা। প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের কোপে ছায়মানারচর গ্রামের মোঃ আব্দুল্লার ছেলে সোহেল(২০), আতিক খার ছেলে রাকিব(১২), মন্ডলবাগ গ্রামের সাবু মোল্যা(৪০) আহত হন। আহত রাকিব ও সোহেল নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অন্যজন স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি। লোহাগড়া থানার ওসি(তদন্ত) মোঃ আমানুল্লাহ আল বারী জানান, এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ওই এলাকার পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here