মোংলায় এই প্রথম বেগম হাবিবুন নাহার স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেন্দ্র চালু

0
401

মোংলা প্রতিনিধি : করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মোংলায় এই প্রথম স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের বেগম হাবিবুন নাহার স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেন্দ্র (ডক্টরস সেফটি কর্নার) এর উদ্ধোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাহাত মান্নান। শেখ আব্দুল হাই ব্লাড ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট সাংবাদিক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিমের ব্যবস্থাপনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বর্হিবিভাগে এ সুরা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে।
মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্রটি শুধু মোংলাবাসী নয় এর পার্শবাতী উপজেলা দাকোপ. রামপাল ও শরনখোলার মানুষও এখানে স্বাস্থসেবা নিতে আসে। তাই বিশ্বব্যাপি মারনঘাতক করোনা ভাইরাস প্রার্দুভাবে পরা মানুষগুলো এখানে নমুনা সংগ্রহ করার কোন ব্যাবস্থা না থাকায় গুর্ভোগে পরতে হয়েছে তাদের। এছাড়া করোনা ছাড়াও অন্য রোগ নিয়ে আসা অনেক মানুষ করোনা বাইরাস সন্দেহে চিকিৎসা নিতে পারেনী। তাই ভাইরাস থেকে প্রতিকার পেতে এই প্রথম স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেন্দ্র চালু করা হলো। এসময় উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জীবিতেষ বিশ্বাস, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস, নৌ কন্টিনজেন্টের দায়ীত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট মোঃ রাকিব, সাবেক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নূর আলম শেখ, ডা. প্রকাশ চন্দ্র বিশ্বাস, ডাঃ কমলেশ সাহা, শেখ আব্দুল ব্লাড ফাউন্ডেশনের সাধারন সম্পাদক আল আমিন সানিসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাহাত মান্নান বলেন, বেগম হাবিবুন নাহার স্বাস্থ্য সুরক্ষা কেন্দ্রটি চালু হওয়ায় একানে শুধু রুগীদের নয় সুবিধা হয়েছে আমাদের চিকিৎসদেরও। এখানকার চিকিৎসকরা নির্বিগ্নে করোনা ভাইরাস উপসর্গ নিয়ে যদি কেউ চিকিৎসা নিতে আসে তাদের খুব সহজেই নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হবে। আগে এখানকার চিকিৎসকরা তাদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে রুগীদের অন্যাত্র পাঠানো হতো। করোনা রুগী চাড়া অন্য রুগী আসলেও দ্বিধাদন্ধে পরতে হতো চিকিৎসকদের। এখন সেদিক থেকে সতভাগ নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করতে পারবে তারা। যারা চিকিৎসক ও এখানকার অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে স্বাস্থ্য সুরক্ষার এ বিশেষ ব্যাবস্থায় ডক্টর সেফটি কর্নার তৈরী করেছে, তাদের কৃতজ্ঞাত প্রকাশ করেন নির্বাহী কর্মকর্তাসহ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্েরর অন্যান্য কর্মকর্তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here