দশমিনায় করোনার প্রভাবে নির্মাণ শ্রমিকদের মানবেতর জীবনযাপন

0
334

দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার নির্মাণ শ্রমিকরা করোনা ভাইরাসকে কেন্দ্র করে বিপাকে পরেছেন। করোনা ভাইরাসে উপজেলা লকডাউন ও সকল প্রকার কাজকর্ম বন্ধ থাকায় অনাহারে ঘরে বসে দিন পার করছেন সিংহভাগ নির্মাণ শ্রমিকদের পরিবার।
জানা গেছে, উপজেলায় প্রায় চার হাজারের অধিক নির্মাণ শ্রমিক রয়েছে। এসব নির্মাণ শ্রমিকদের মধ্যে কেউ ভবন নির্মাণ,ঘর নির্মাণ ও রং মিস্ত্রীসহ বিভিন্ন নির্মাণ কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। এদের মধ্যে সিংহভাগ নির্মাণ শ্রমিক দিন আনেন দিন খান। একদিন কাজ না করলে চুলোয় আগুন জলে না। সরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পান না অধিকাংশ শ্রমিকরা। এখন পর্যন্ত উপজেলায় সরকারি ও সামাজিক সংগঠনগুলো যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন তা পৌঁছায়নি বেশিরভাগ নির্মাণ শ্রমিকের কাছে। ফলে পরিবার পরিজন নিয়ে না খেয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে। মো. জাকির নামে এক নির্মাণ শ্রমিক বলেন, তিনি সরকারের ঘোষণা পর কাজে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। নতুন করে কোন কাজ পাওয়ার সুযোগ নেই। তিনি যে ভবনের নির্মাণ কাজ করতেন তাও বন্ধ হয়ে গেছে। তার ৬ সদস্যর পরিবার। একদিন কাজে না গেলে না খেয়ে থাকতে হয়। তিনিই তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী ব্যক্তি। আয় না থাকায় এখন খেয়ে না খেয়ে দিন পার করছেন। শুধু জাকির নয়। তার মতো শত শত জাকির না খেয়ে দিন গুণছেন। বাংলাদেশ ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের (ইনসাব) দশমিনা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. আনিচুর রহমান মোল্লা বলেন, নির্মাণ শ্রমিকরা করোনা পরিস্থতিতে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। অসহায় হয়ে পরেছেন তাদের পরিবার। সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনের কাছে যাচাই বাছাই করে প্রকৃত শ্রমিকদের ত্রাণ সহায়তার অনুরোধ জানিয়েছেন এই শ্রমিক নেতা।
এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা. তানিয়া ফেরদৌস বলেন সরকারি যে বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল তা শেষের দিকে। নতুন করে বরাদ্দ পেলে স্থানীয় শ্রমিক নেতাদের সাথে কথা বলে যাচাই বাছাই করে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here