কালিগঞ্জে অসহায় এক হিন্দু পরিবারের জমি জবর দখল করে ভারতে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

0
323

সেলিম রেজা মুকুল, সাতক্ষীরা থেকে : সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের চাম্পাফুল ইউনিয়নের একটি অসহায় হিন্দু পরিবারের পৈত্রিক জমি স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা জোরপূর্বক দখল করে ভারতে তাড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে বলে ঘুশুড়ি গ্রামের মৃত মাদার চন্দ্র দে’র পুত্র সুবোধ চন্দ্র দে অভিযোগ করেছেন। কালিগঞ্জ উপজেলার চাম্পাফুল ইউনিয়নের ঘুশুড়ি গ্রামের সুবোধ চন্দ্র দে জানান, বাধাকুড় মৌজায় ২৫/৪৭ দাগে ২ একর ৬ শতক বিলান জমি ২০০০ সাল থেকে একই গ্রামের মৃত সাকাত আলী বিশ্বাসের ছেলে সিদ্দিক বিশ্বাস ওরফে সিদ্দিক পাটনী’র কাছে বাৎসরিক ৯০ হাজার টাকা হারি দেওয়ার চুক্তিতে লীজ দেয়। সিদ্দিক পাটনী ওই জমি থেকে স্থানীয় জামায়াত নেতা নুর ইসলাম গাজীকে ৮৮শতক গোবিন্দ বিশ্বাসকে ৭০ শতক ও নিজে ৫৮ শতক জমি নিয়ে মৎস্যঘের করে সিদ্দিক পাটনী। ১/২ বছর সিদ্দিক পাটনী হারির টাকা দিলেও তার পর থেকে সম্পূর্ণ হারির টাকা কোন বছর পরিশোধ করেননি। ২০১৯ সাল থেকে হারির টাকা দেওয়া সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেয়। টাকা চাইতে গেলে তাকে মারপিট করে। সিদ্দিক পাটনী চাম্পাফুল আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক। সুবোধ দে তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, সিদ্দিক পাটনী কুখ্যত ব্লাকার সামছুর এর পাটর্নার। এলাকায় তার সন্ত্রাসী বাহিনী থাকায় সাধারণ মানুষ মুখ খুলতে ভয় পায়। অসহায় সুবোধ দে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে হারির টাকা চাইতে যায় সিদ্দিক পাটনীর কাছে। তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ দিয়ে তার কোন জমি নেই বলে তাড়িয়ে দেয় এবং জমির কথা বললে লাশ হলে যাবে বলেও হুমকি দেয়। এছাড়া বলে তুই ভারতে চলে না গেলে তোকে ও তোর পরিবারকে খুন করে ফেলবো। ঘুশুড়ি গ্রামের মৃত শিশির কুমার দের পুত্র জয়দেব কুমার দে মোহাম্মদ মোনতেজ গাজীরপুত্র আনার আলী গাজী রাজাপুর গ্রামের মৃত. তালেক আলী মোড়লের ছেলে আবু বকর সিদ্দিক জানান, সুবোধ দে আমাদেরকে নিয়ে অনেকবার সিদ্দিক পাটনীর কাছে টাকা চাইতে গেলে তাকে তাড়িয়ে দেয়। বলে তোর কোন জমি নেই এবং বলে ভারতে চলে না গেলে তোর লাশ পড়ে যাবে বলে হুমকি দেয়।
স্থানীয় চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোজাম্মেল হক কে জানালে তিনি কিছু করতে পারবে না বলে জানিয়ে দেন। অভিযোগের বিষয়ে সিদ্দিক পাটনীর কাছে মোবাইলে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদের বিচারের পর আমি তাকে জমি ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করছি। সুবোধ দে কোন উপায় না পেয়ে উপজেলা পরিষদে অভিযোগ করেন। ১৯মাস উপজেলা পরিষদের বিচার চলার পর সুবোধ চন্দ্র দে’র ২ একর ৬শতক জমি তাকে ফেরত দেওয়ার জন্য আদেশ হয়। এরপরও দীর্ঘদিন জমি ফেরত না দিয়ে সিদ্দিক পাটনী ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী তাকে ভারতে তাড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে । অসহায় সুবোধ কোন উপায় না পেয়ে সাতক্ষীরা প্রেসকাবে সংবাদ সম্মেলন করে। তাতেও কোন সুবিচার পাইনি। এরপর সুবোধ দে পুলিশ সুপারসহ পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ, জেলা প্রশাসক, গোয়েন্দা সংস্থা, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্যপরিষদসহ অন্যান্য সংগঠনের কাছে সুবিচার চেয়ে আবেদন করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here