সাবেক সিবিএ নেতাকে হামলা ও মারধর শেষে উল্টো পুলিশে সোপর্দ করার ঘটনায় মোংলা বন্দরের শ্রমিকদের একাংশের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও চরম উত্তেজনা

0
284

মোংলা প্রতিনিধি : মোংলা বন্দরে শ্রমিকদের সাবেক সিবিএ’র এক নেতাকে হামলা ও মারধর শেষে উল্টো তাকে পুলিশে সোপর্দ করার ঘটনায় শ্রমিকদের একাংশের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। বন্দরের ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের মধ্যে ত্রাণ বন্টন ইস্যুকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সকালে শহরের সিঙ্গাপুর মার্কেট থেকে এ ঘটনার সূত্রপাত ঘটে। এ ঘটনায় ওই শ্রমিক নেতা মারাত্মক জখম হয়েছেন। পুলিশ হেফাজতে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
আহত শ্রমিক নেতার পরিবারের অভিযোগ, প্রতিপক্ষ শ্রমিক নেতাদের স্বার্থ ব্যাঘাত ঘটায় আক্রোশ মুলক পরিকল্পিতভাবে তার উপর নির্মমভাবে কয়েক দফায় এ হামলা ও নির্যাতন চালানো হয়। এ ছাড়া এ ঘটনার নেপথ্যে মালিকদের একাংশের ইন্ধন রয়েছে বলেও আহতের পরিবারের অভিযোগ।
প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বিলুপ্ত মোংলা বন্দর শ্রমিক সংঘের (শ্রমিকদের সাবেক সিবিএ) সাধারণ সম্পাদক একেএম সাহাব উদ্দিন (৫৫) শুক্রবার সকাল পৌনে ১১ টার দিকে শহরের সিঙ্গাপুর মার্কেট দিয়ে যাওয়ার সময় একদল দুর্বৃত্ত তার পথরোধ করে হঠাৎ করে হাতুড়ি ও লাঠি নিয়ে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এরপর আহত অবস্থায় তাকে রিক্সায় করে ৬ তলা ভবনের ভিতরে নিয়ে পুনরায় হামলা ও বেদম মারপিট করে। এক পর্যায়ে আশংকাজনক অবস্থায় হামলাকারীরা তাকে থানায় সোপর্দ করে। পরে পুলিশ তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে। বিকেল ৫ টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রমিক নেতা সাহাব উদ্দিন থানায় পুলিশ হেফাজতে ছিলেন।
এ ব্যাপারে মোংলা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধূরী জানান, শ্রমিকদের বিবদমান দু’গ্রপের পাল্টাপাল্টি হামলায় সাহাব উদ্দিনকে আহত অবস্থায় থানায় সোপর্দ করা হলে পুলিশ তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে কিছুটা সুস্থ্য করে। তবে আসলে কি ঘটনা ঘটেছে পুলিশ তা নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে। তদন্তের পর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। শ্রমিকদের একটি সূত্র জানায়, করোনা কালীন সময়ে দুর্গত শ্রমিকদের মধ্যে ত্রাণ বন্টন নিয়ে শ্রমিকদের বিবদমান দু’গ্রুপের মধ্যে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ ও অসন্তোষ চলে আসছিল। এ ইস্যুকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শ্রমিকদের একাংশের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here