আজ যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের স্থগিত হওয়া উপ-নির্বাচন বিজয়ের পথে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী শাহীন চাকলাদার

0
251

মোহাচ্ছান আলী শাওন, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি, কেশবপুর ॥ যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের স্থগিত হওয়া উপ-নির্বাচন আজ ১৪ জুলাই সকাল ৯ টা হবে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণের জন্য ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ব্যাপক গণসংযোগ ও পথসভা করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী শাহীন চাকলাদারের পক্ষে উপজেলা ব্যাপী গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। জানাগেছে, যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের এমপি সাবেক জনপ্রশাস প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক গত ২১ জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। ১৬ ফেব্রুয়ারী উপ-নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনছিল ২৭ ফেব্রুয়ারী এবং ২৯ মার্চ উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে মনোনয়নপত্র জমাদেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, বিএনপির মনোনয়ন পেয়ে মনোনয়নপত্র জমাদেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবুল হোসেন আজান ও জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়ে মনোনয়নপত্র জমাদেন কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান।
নির্বাচন কমিশনের তফশীল অনুযায়ী প্রার্থীরা গণংযোগ চালাতে থাকেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী শাহীন চাকলাদার দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে উপজেলাব্যাপী ব্যাপক গণসংযোগ করেন। বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী আবুল হোসেন আজাদ ও জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী হাবিবুর রহমান ধীর গতিতে গণসংযোগ করেন। এরই মাঝে করোনা ভাইরাসের কারণে ২৬ মার্চ উপ-নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন।
করোনা ভাইরাস মহামারীতে কেশবপুর উপজেলা বাসীর পাশে দাঁড়ান যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার। তিনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক, সাবান, সেনিটাইজার প্রদান করেন। তিনি কর্মহীন ২২ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী প্রদান করেন। যা অন্য দু’প্রার্থী করেননি।
পরবর্তীতে ৪ জুলাই নির্বাচন কমিশন যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের স্থগিত হওয়া উপ-নির্বাচন ১৪ জুলাই নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন।
৫ জুলাই থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে বেশ জোরেসোরে উপজেলা ব্যাপী গণসংযোগ ও পথসভা করেন। যার ফলে উপজেলাব্যাপী শাহীন চাকলাদের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলা ব্যাপী ভোটাররা শাহীন চাকলাদারকে ভোট দেওয়ার জন্য অপেক্ষায় রায়েছ। যে সকল ভোটাররা আজ শাহীন চাকলাদারকে আজ নৌকা প্রতীকে ভোটে দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
এদিকে জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি ইতিমধ্যে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে। জাতীয় পার্টির প্রার্থী হাবিবুর রহমান গণসংযোগ করলেও কোন অবস্থান তৈরী করতে পারেনি।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ বজলুর রশীদ জানান, কেশবপুর উপজেলায় ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার মোট ভোটার হচ্ছে ২ লাখ ৩ হাজার ১৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ২ হাজার ১শত ২২ জন ও মহিলা ভোটার ১লাখ ৮শত ৯৬ জন। মোট ভোট কেন্দ্র ৭৯টি। ৩৭৪টি বুথ, দায়িত্ব পালন করবে ৭৯ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৩৭৪ জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার ও ৭৪৮ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করছে।
কেশবপুৃর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান জানান, ভোট কেন্দ্রের সুষ্ঠু পরিবেশ রায় ১৮জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও আনসার ব্যাটালিয়ন দায়িত্ব পালন করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here