আপ্লুত সুনেরাহ

0
165

বিনোদন ডেস্ক :জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে প্রতিবছরই কোনো না কোনো চমক থাকে। এবার ২০১৯ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের অন্যতম চমকের নামটি হচ্ছে সুনেরাহ বিনতে কামাল। ক্যারিয়ারের অভিষেকে সিনেমার জন্যই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরার তালিকায় এই অভিনেত্রীর নাম উঠেছে। তথ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া প্রজ্ঞাপনে নিজের নাম দেখার পর আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন সুনেরাহ। তিনি বলেন, প্রথমে যখন শুনি বিশ্বাস হচ্ছিল না। যেই স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য বছরের পর বছর অভিনেতা-অভিনেত্রীরা প্রতীক্ষায় থাকেন সেই স্বীকৃতি যদি প্রথম চলচ্চিত্রেই আসে তাহলে তো সেটা অকল্পনীয় কিছুই। সত্যি কথা বলতে কোনোভাবেই আমার বিশ্বাস হচ্ছিল না। মনে হচ্ছিল স্বপ্ন দেখছি।

এ খুশির কোনো কুল-কিনারা নেই। যাই হোক ‘ন ডরাই’ সিনেমার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রত্যেকটি মানুষের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। সবাই যেভাবে সাপোর্ট করেছিল কাজের সময়, তাদের কারণেই কিছু একটা করতে পেরেছিলাম। এই পুরস্কার পাওয়ার পর আমার দায়িত্ব আরো বেড়ে গেছে। দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে হলেও নিষ্ঠার সঙ্গে পথ চলতে চাই। ভালো কিছু করতে চাই সামনে। গত বছরের নভেম্বরে ‘ন ডরাই’ সিনেমায় একজন সার্ফারের চরিত্রে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে সুনেরাহর। মাহবুব উর রহমানের প্রযোজনা ও চিত্রনাট্যে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন নির্মাতা তানিম রহমান অংশু। সুনেরাহ বেড়ে উঠেছেন ঢাকায়, তিন বছর বয়স থেকে ললিতকলা একাডেমিতে নাচ শিখেছেন তিনি। পড়াশোনা করেছেন রাজধানী উত্তরার স্কলাসটিকা স্কুলে। স্কুলজীবনেই বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত নৃত্যশিল্পী ছিলেন। নবম শ্রেণিতে পড়ার সময় ফ্যাশন মডেল হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের আগে একটি পোশাকের ব্র্যান্ডের বিলবোর্ডে দেখা গেছে তাকে; কাজ করেছেন বেশ কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতে। সংগীতশিল্পী প্রীতমের ‘রাজকুমার’- মিউজিক ভিডিওতে সুনেরাহকে দেখে ‘ন ডরাই’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দেন পরিচালক তানিম রহমান অংশু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here