কোটচাঁদপুর পৌর নির্বাচনে ত্রাসের রাজত্ব রাজত্ব চলছে জেলা ছাত্রলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক রাব্বিসহ ৩ সশস্ত্র সন্ত্রাসী অস্ত্রসহ আটক

0
251

কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি : দুলাভাই শাহজাহান আলী কোটচাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী, তাই তার পক্ষে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে প্রানপন চেষ্টা চালাচ্ছে শ্যালক কোটচাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক রাব্বি।
গতকাল বিকালে দোরা ইউনিয়ন থেকে ১৫/২০ টি মটর সাইকেল যোগে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের নিয়ে কোটচাঁদপুর শহরে প্রবেশের পথে শ্যালক রাব্বি সহ ৩ সশস্ত্র সন্ত্রাসীকে অস্ত্রসহ আটক করেছে কোটচাঁদপুরের বেরশিক পুলিশ ।
এসআই মাসুদ ও এএসআই হুমাউন এর নেতেৃত্বে একদল পুলিশ এই সাহসি কাজটি করায় স্থানীয়রা তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ঠিক ৫ টার দিকে রাব্বির নেতৃত্বে বিশাল একটি মটর সাইকেল বহর নিয়ে কোটচাঁদপুর শহরে ঢোকার আগে মইদুল মিয়ার ভাটার পাশে প্রজেক্ট মোড়ে এসআই মাসুদ ও এএসআই হুমাউন তাদের থামার শংকেত দেন। এসময় মটর সাইকেল বহরটি তাদের চাঁপা দেবার ভয় দেখিয়ে চলে যাবার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে এসআই মাসুদ ও এএসআই হুমাউন জেলা ছাত্রলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক রাব্বি সহ ৩ জনকে মটর সাইকেলসহ ধরে ফেলে। এ সময় বাকি ৫০ জনের অধিক সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা মটর সাইকেল সহ পালিয়ে যায়।
এসআই মাসুদ ও এএসআই হুমাউন এ সময় রাব্বি সহ ৩ জনের দেহ তল্লাসী কালে একটি পিস্তল, চাইনিজ চাকু ও চাইনিজ কুড়াল পায়। তাদেরকে দ্রুত থানায় নিয়ে আসে।
পুলিশের একটি সূত্র বলেছে, রাব্বি সহ ৩ জনের বিষয়ে মিডিয়া সহ কাউকে কোন তথ্য নাদিতে থানার সবাইকে নির্দেশ ওসি দিয়ে তার সরকারী মোবাইল সেটটি বন্ধ করে দেন। তাদের বিরুদ্ধে মামলা না করার জন্য একটি উচ্চ মহলের সাথে দেন দরবার চলছে।
এ বিষয়ে এসআই মাসুদকে মোবাইলে রিং দিলে তিনি বলেন, ‘ওসি স্যার ছাড়া আমরা কিছুই বলতে পারবো না’।
ডিউটি অফিসার এসআই ইসরাফিল হোসেনের সাময়িক অনুপস্থিতের কারনে দায়িত্বরত ডিউটি অফিসার এসআই জাহিদ বলেছেন, আটকের বিষয়ে খাতায় কোন এন্ট্রী নাই।
বিষয়টি সম্পর্কে ওসি মাহবুবুল আলম এর ০১৩১০১৪৪২৭৮ নম্বরে বারবার রিং দেয়া হলে সেটটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে এডিশনাল এসপি (সার্কেল) মোহাইমিনুল ইসলাম এর ০১৩২০১৪৪১৪৯ নম্বরে রিং দিলে রিং বাজলেও তিনি রিসিভ করেননি। অনুরুপ ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম এর ০১৩২০১৪৪১০০ নম্বরে রিং দিলে রিং বাজলে তিনিও রিসিভ করেননি।
আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর পক্ষে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে আসা সন্ত্রাসী আটকের সংবাদ শুনে বিভিন্ন শ্রম পেশার মানুষরা খুশি হলেও তাদের মধ্যে শংকা থেকেই যাচ্ছে বলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেকে অভিমত ব্যক্ত করেছেন। তারা বলছেন, যে কোন মুহুর্তে রাব্বি বাহিনী সহ আরও অনেক সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অপ্রত্যাশিত জীবনহানীকর ঘটনা ঘটাতে পারে। তারা সুষ্ঠ, অবাধ ও সন্ত্রাসমুক্ত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here