যবিপ্রবির দুই শিার্থীর চিকিৎসায় দেড় লাখ টাকা আর্থিক সহায়তা

0
43

মালেকুজ্জামান কাকা, যশোর : যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত একজন এবং দুরারোগ্য কিডনি জটিলতায় আক্রান্ত আরেকজন শিার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের প থেকে এক লাখ ৬২ হাজার ৪০০ টাকার আর্থিক সহায়তা করা হয়েছে।
সোমবার দুপুরে যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন তাঁর কার্যালয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের প থেকে দুই শিার্থীর বিভাগীয় চেয়ারম্যানদের হাতে আর্থিক সহায়তার নগদ অর্থ তুলে দেন। ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তর সূত্র জানায়, যবিপ্রবির শিকবৃন্দ তাঁদের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে শিক সমিতির মাধ্যমে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত অ্যাকউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস (এআইএস) বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিার্থী তাসিব আহম্মেদকে ৬৬ হাজার ২০০ টাকা এবং দুরারোগ্য কিডনি জটিলতায় আক্রান্ত ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের সাবেক শিার্থী মো. কামরুজ্জামানের চিকিৎসায় একই পরিমাণ টাকা চিকিৎসার জন্য সহায়তা করেন। এ ছাড়া মো. কামরুজ্জামানের চিকিৎসা সহায়তায় পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের মাধ্যমে মাননীয় উপাচার্যের তহবিল থেকে ২০ হাজার টাকা এবং যবিপ্রবি কর্মচারী সমিতির প থেকে ১০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে।
দুই শিার্থীকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক-শিার্থী ও কর্মচারীদের ধন্যবাদ জানান অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন। এ ছাড়া যে সকল শিক-কর্মচারী তাসিব এবং কামরুজ্জামানের চিকিৎসা তহবিল সংগ্রহে সব সময় তদারকি করেছেন, তাঁদেরও ধন্যবাদ জানান তিনি। এরপর তিনি তাসিব এবং কামরুজ্জামানের চিকিৎসার সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন। আর্থিক সহায়তা তুলে দেওয়ার সময় যবিপ্রবির প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. সৈয়দ মো. গালিব, শিক সমিতির সভাপতি ড. মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, ড.ইঞ্জ., ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. মো. আলম হোসেন, এআইএস বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ কামাল হোসেন, ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, আইসিটি সেলের পরিচালক ড. ইমরান খান, কর্মচারী সমিতির সভাপতি মো. শওকত ইসলাম সবুজ, সাধারণ সম্পাদক মো. বদিউজ্জামান বাদল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তর, বিভিন্ন বিভাগ, কাব, সমিতি ও শিার্থীদের প্রত্য সহযোগিতায় তাসিব আহম্মেদকে প্রায় পাঁচ লাখ নয় হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here