যশোরে ট্রাক দুর্ঘটনায় ২ গরু ব্যবসায়ী নিহত ।। আহত ৬ জন

0
133

স্টাফ রিপোর্টার ঃ গরু কেনা হলো না আব্দুল আলিম ও জহুরুল ইসলামের। পথেই সড়ক দূর্ঘটনায় প্রাণ হারাতে হলো এ দু’ব্যবসায়ীর। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পিকআপ চালকসহ তাদের ৬ সহযোগী। রোববার ভোরে যশোর শহরের আরবপুর দিঘীরপাড় এলাকায় ট্রাক পিকআপ ও প্রাইভেটকারের ত্রিমুখী সংঘর্ষ হলে দূর্ঘটনাটি ঘটে। আহতদের মধ্যে চারজনকে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। নিহত ও আহতদের স্বজনরা জানিয়েছেন, গরু কেনার জন্য রোববার ভোররাতে পিকআপে করে চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা, সাতক্ষীরার হাট এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। এক পর্যায়ে সকাল ৬টারদিকে যশোর শহরের আরবপুর দিঘীরপাড় এলাকায় পৌঁছুলে ট্রাক ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় একটি প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকটিকে ধাক্কা দেয়। ফায়ার সার্ভিস ও সিলি ডিফেন্সের টিম লিডার শেখ মুজিবর রহমান বলেন, খরব পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যেয়ে আহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠাই। এসময় আব্দুল হালিম নামের একজনের মৃতদেহ সেখানে পড়ে থাকতে দেখি। যশোর সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. আরিফ আহমেদ জানান, সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হয়ে সকালে আটজন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে জহুরুল ইসলাম নামের একজন মারা যান। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তার মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। এছাড়া আবেদ আলী নামের একজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় স্থানান্তরের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে তিনজন চিকিৎসাধীন আছেন। হতাহতরা সকলেই চুয়াডাঙ্গার জীবননগর থানার বাসিন্দা। তারা হলেন, সেনেরহুদা গ্রামের কাজী মোল্লার ছেলে আব্দুল আলিম, গোয়ালপাড়া গ্রামের মতলেব মোল্লার ছেলে জহুরুল ইসলাম, উথলী গ্রামের নূর মোহাম্মাদের ছেলে জিয়া, একই গ্রামের মৃত রাহাতুল্লাহর ছেলে আমজাদ হোসেন, সেনেরহুদা গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে ফজলুল হক ও বাবর আলী, একই গ্রামের আবেদ আলীর ছেলে পিকআপ ড্রাইভার নাজমুল ইসলাম ও কাদিপুর গ্রামের নূর আলীর ছেলে কাদের আলী। যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসাইন জানিয়েছেন, দূর্ঘটনা কবলিত যানগুলো জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া নিহতদের মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here