নড়াইলে দীর্ঘদিনের দু’পক্ষের বিরোধের অবসান করলেন এসপি প্রবীর কুমার রায়

0
109

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি: নড়াইলের পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপিএম (বার) পারবেন,গন্ডব ও চালিঘাট দুইটি গ্রামের মধ্যে দীর্ঘ দিনের বিরোধ মিটাতে,না কি পুলিশ সুপার ও ব্যর্থ হয়ে ফিরবেন,গন্ডব ও চালিঘাট গ্রামের মানুষ পুলিশ সুপারের কথা রাখবেন তো।
নড়াইল লোহাগড়া থানাথীন কাশিপুর ইউনিয়নের গন্ডব ও চালিঘাট দুইটি গ্রামের মধ্যে দীর্ঘ দিনের বিরোধ চলে আসছিল,প্রতিনীয়তই আইন শৃঙ্খলা বাহিনি শান্তি মিমাংশা করেও এ দুই দলের বিরোধ বন্ধ করা সম্ভ হয়নি।
দীর্ঘ দিনের চলমান গ্রাম্য বিরোধ নিরসনের লক্ষে পুলিশ সুপারের উদ্যোগে লোহাগড়া থানার আয়োজনে (৬আগষ্ট) শুক্রবার বিকাল ০৪.০০ ঘটিকার সময় লোহাগড়া থানাধীন কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।
শান্তি মিমাংশার মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপিএম(বার),বিশেষ অতিথি ছিলেন,লোহাগড়া উপজেলা চেয়ারম্যান,শিকদার আব্দুল হান্নান রুনু, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( সদর সার্কেল) তানজিলা সিদ্দিকা,লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী-লীগের সভাপতি মোঃআলাউদ্দিন মুন্সি,লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী-লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মশিউর রহমানসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সাংবাদিকগণ প্রমূখ।

এ মত বিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন,লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু হেনা মিলন।আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মত বিনিময় সভায় সাবেক মেম্বর সাইফার ও বিপ্লব হোসেন সহ উভয় গ্রুপের নেতৃত্বদানকারী লোকজন ভবিষ্যতে কোন রুপ আইন-শৃঙ্খলা পরিপন্থি কাজে লিপ্ত হবেন না বলে অঙ্গিকার করেন এবং উভয় গ্রুপের লোকজন পুলিশ সুপারের সামনে ঢাল-সড়কি জমা প্রদান করেন।

পুলিশ সুপার বলেন,আপনাদের কাজে খুশি হয়েছি যে আপনারা আমার কথা সুনে এসব ঢাল-সড়কি জমা দিয়ে দিলেন।পরবর্তীতে যারা আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাবে তাদেরকে আমরা কঠোর হস্তে দমন করব,আমরা চাই আপনারা সবাই মিলেমিশে শান্তিতে বসবাস করেন এবং নড়াইল জেলা পুলিশ সব সময় শান্তি প্রিয় মানুষের পাশে থাকবে এবং আছে।

এদিকে দির্ঘদিনের এ বিরোধ মিমাংশা করতে একাধীক পুলিশ সুপার হিমশিম খেয়েছে কিন্তু মিমাংশা করতে পারেনি।শান্তি মিটিং করে ফিরতে না ফিরতেই শুরু হয়েছে কাইজে ভাংচুর লুটপাট,এমনকি একই দিনে ৩জনকে মাডার করেছেন এ গ্রামের শান্তি প্রিয় অশান্ত মূর্খ মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here