ঝিকরগাছায় প্রতারনার মাধ্যমে জমি নামপত্তনের অভিযোগ

0
144

ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি ॥ যশোরের ঝিকরগাছায় প্রতারনার মাধ্যমে ৭ শতক জমি নামপত্তনের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়নের ১৫৬ আলীপুর মৌজায়। ঘটনা জানাজানি হলে বাঁকড়া ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ মহিদুল ইসলাম নামপত্তনের কেস নং-১২৭৭/৯-১/২০১৯-২০২০ খারিজের আবেদন করেছেন। জানাগেছে, উজ্জলপুর গ্রামের ইছতুল্যাহ মন্ডলের স্ত্রী নুর জাহানের নিকট থেকে ২৪/০২/১৯৯২ সালের ১২৩৮ নং দলিলমুলে ক্রয় সুত্রে আলীপুর মৌজায় এসএ ১১৩ খতিয়ানের ১৭/৬৭০ নং দাগের ১৪ শতক জমি খাটবাড়িয়া গ্রামের মৃত-খয়রাত আলীর কণ্যা নুরজাহান ও পুত্র নুর ইসলাম ভোগদখল করিয়া আসছে। কিন্তু বিক্রেতা নুর জাহানের নামে কোন জমি না থাকলেও তার স্বামী ইছতুল্যাহ ও জামাতা মামুন প্রতারনার মাধ্যেমে অফিসকে ভুল বুঝিয়ে উক্ত ১৪ শতক জমি হতে ৭ শতক জমি নিজের নামে নামপত্তন করে নেয়। পরবর্তীতে নুর ইসলামগং জানতে পেরে বাঁকড়া ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মহিদুল ইসলামের নিকট আবেদন করেন। নুর ইসলাম গংয়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে উক্ত নামপত্তন কেস খারিজের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর তদন্তপূর্বক আবেদন করেছেন বাঁকড়া ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মহিদুল ইসলাম। ইতিমধ্যে প্রতারক চক্র জালদলিল দেখিয়ে উক্ত জমি দখলের জন্য পায়তারা করছে বলে জানাগেছে। জানতে চাইলে বাঁকড়া ইউনিয়ন ভূমি সহকারী মহিদুল ইসলাম বলেন, গত ২৮ জুলাই শুনানির দিন থাকলেও চলমান লকডাউনের কারনে হয়নি। পরবর্তী শুনানির ডেট দেয়া হবে। বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন ভুক্তভোগী জমি মালিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here