ফলোআপঃ দেবহাটায় ১০ম শ্রেনীর ছাত্রীকে হত্যার ঘটনায় ৪ জন আটক

0
132

আব্দুস সালাম,দেবহাটা: সাতীরার দেবহাটা উপজেলার টিকেট গ্রামের ১০ম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী পূর্ণিমা দাসকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের পিতা শান্তিরঞ্জন দাস বাদি হয়ে একই গ্রামের পার্থ ম-লের নাম উল্লেখ করে শুক্রবার রাতেই এ মামলা দায়ের করেন।
এদিকে এ হত্যাকা-ের ঘটনায় র‌্যাব চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। আটককৃতরা হলেন, দেবহাটা উপজেলার টিকেট গ্রামের মাধব চন্দ্র ঢালীর ছেলে গ্রাম ডাক্তার দেবব্রত ঢালী ওরফে ছোট ডাক্তার, একই গ্রামের দীলিপ সরকারের ছেলে নয়ন সরকার, আশাশুনি উপজেলার গাবতলা গ্রামের সূর্যকান্ত দাসের ছেলে টিকেট গ্রামের ঘরজামাই সুপ্রশান্ত দাস ও তার স্ত্রী সুমিত্রা দাস।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়, দেবহাটা উপজেলার টিকেট গ্রামের শান্তিরঞ্জন দাসের মেয়ে গাভা একেএম আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী পূর্ণিমা দাসের সঙ্গে একই গ্রামের শিবপদ ম-লের ছেলে পার্থ ম-লের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এক বছর আগে পূর্ণিমাকে বিয়ের জন্য পার্থ ম-ল প্রস্তাব দেয়। শান্তিরঞ্জন দাস সেই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় প্রাইভেট পড়তে বেরিয়ে রাতে বাড়ি ফেরেনি পূর্ণিমা। শুক্রবার সকালে একই গ্রামের তারক ম-লের বাড়ির পুকুর পাড় থেকে পূর্ণিমার হাত বাঁধা রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে কামড় ও নখের দাগ ছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয় পূর্ণিমাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।
তবে স্থানীয় একটি মহল ধারণা করছেন যে এ ধরণের ঘটনা একজনের পে ঘটানো সম্ভব নয়। সেেেত্র পার্থ ম-লের সহযোগীরাও জড়িত থাকতে পারে।
এদিকে পুলিশ শুক্রবার টিকেট গ্রামের তারক মিস্ত্রীর ছেলে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল চালক গোবিন্দ মিস্ত্রীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেয়। রাতে টিকেট গ্রামের গ্রাম ডাক্তার দেব্রত ঢালী, নয়ন সরকার, টিকেট গ্রামের ঘরজামাই সুপ্রশান্ত দাস ও তার স্ত্রী সুপ্রিয়া দাসকে র‌্যাব পরিচয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। দেবব্র্রত ঢালীর মোবাইল ফোন থেকে পার্থ বৃহষ্পতিবার বিকেলে পূর্ণিমাকে ফোন করেছিল। সেই মোবাইল কললিস্ট এর সূত্র ধরে দেবব্রতকে আটক করা হয়। যদিও র‌্যাব- ৬ সাতীরা অফিসের প থেকে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করা হয়েছে।
দেবহাটা থানার পুলিশ পরিদর্শক ফরিদ আহম্মেদ জানান, এ ঘটনায় শান্তিরঞ্জন দাস বাদি হয়ে শুক্রবার রাতেই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। একমাত্র আসামী পার্থ ম-লকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তবে চারজনকে আটকের ব্যাপারে তিনি জানান, র‌্যাব বা অন্য কোন আইন প্রয়োগকারি সংস্থার সদস্যরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদেরকে আটক করতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here