কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মেনে কঠোর নিরাপত্তায় দেবহাটার ২১ মন্ডপে দূর্গা বরণের নির্দেশ দিলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার জামিল আহমেদ

0
124

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি,দেবহাটা: আসন্ন শারদীয় দূর্গা পূজা সম্পন্ন করতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দূর্গা উৎসব পালনের নির্দেশ দিয়েছেন দেবহাটা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এসএম জামিল আহমেদ। বৃহস্পতিবার দেবহাটা থানার সভাকক্ষে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এসএম জামিল আহমেদ আরো বলেন, ‘সরকারি বিধি-নিষেধ ও কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের নির্দেশনা মেনে দেবহাটা উপজেলার ২১টি পূজা মন্ডপে শারদীয় দূর্গা পূজা সম্পন্ন করতে হবে। করোনা সংক্রমন এড়াতে মন্ডপ গুলোতে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি যাতে মানা হয়, সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি রাখতে হবে। কোন প্রকার আইনশৃঙ্খলা বিঘিœত হয় এমন কোন কাজ করা যাবেনা। মন্ডপে নারী পুরুষদের আলাদা যাওয়া আসার ও বসার ব্যবস্থা রাখা। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সৌহাদ্যপূর্ন সম্প্রীতি বজায় রাখতে আযান ও নামাজের সময় মন্ডপের উচ্চ শব্দপূর্ন মাইক বন্ধ রাখতে হবে। মন্ডপের কর্তৃপক্ষ তাদের সুবিধা মত স্বেচ্ছাসেবক ব্যবস্থা রাখতে। প্রয়োজন হলে সিসি ক্যামেরা বসাতে হবে।
তিনি আরো জানান, জনবহুল গাজীরহাট, সখিপুর পালপাড়া, দক্ষিন পারুলিয়া জেলিয়াপাড়া, সন্যাসখোলা, সুবর্ণাবাদ সহ ঝুঁকিপূর্ন পূজা মন্ডপ গুলোতে পুলিশের পাশাপাশি অতিরিক্ত আনসার সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা দায়িত্বরত থাকবেন। প্রত্যেক মন্ডপে সুষ্ঠভাবে যাতায়াতের ব্যবস্থা নিশ্চিত করবে। দূর্গা পূজা ঘিরে যাতে করে চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই, ইভটিজিং সহ প্রত্যেকটি মন্ডপের নিরাপত্তায় কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। পূজা চলাকালীন সময়ে ধর্মীয় গান ব্যাতীত কোন প্রকার ডিজে বা অশালীন গান মন্ডপে বাজানো যাবেনা। একইসাথে কোন ব্যাক্তি বা গোষ্ঠী পূজাকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও হুশিয়ারি দেন তিনি।
সভাপতির বক্তব্যে নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ ওবায়দুল্লাহ বলেন, পূজা মন্ডপ গুলোর নিরাপত্তায় পুলিশ মোতায়েন করার পাশাপাশি পুলিশের একাধিক টিম টহলরত থাকবে। মাদকসেবীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, পূজার সময় যদি কারোও মদ খাওয়ার অভ্যাস থাকে তাহলে ঘরে বসে দরজা লাগিয়ে খেয়ে শুয়ে পড়বেন। কিন্তু পূজা মন্ডপে গিয়ে মদ্যপান বা মাতলামি করলে তাকে ছাড় দেয়া হবেনা। একইসাথে অধিক ঝুঁকিপূর্ন মন্ডপ গুলোর বাড়তি নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের পরামর্শ দেন ওসি।
দেবহাটা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মোবাশ্বের’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সুভাস চন্দ্র ঘোষ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জিএম স্পর্শ, প্রেসকাব সভাপতি আব্দুর রব লিটু, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান শাওন, দেবহাটা সদর ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর গাজী, সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন রতন, পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আসাদুল ইসলাম, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, দেবহাটা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাবু নির্মল কুমার মন্ডল প্রমুখ।
এসময় উপজেলার প্রত্যেকটি দূর্গা পূজা মন্ডপের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, দেবহাটা থানার সকল পুলিশ সদস্য এবং গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here