করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের যশোর পুলিশ ক্লাব মাঠে তাঁত,বস্ত্র, হস্ত, কুটির শিল্প পণ্যের বাজার উদ্বোধন

0
170

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর সদর উপজেলার বিজয়নগর গ্রামের মোহাম্মদ ইসমাইল। পেশায় ব্যাগ ও কসমেটিক্স পণ্য বিক্রেতা। করোনার কারণে দির্ঘদিন ব্যবসা বন্ধ থাকায় উপার্জন ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছেন। দুই সন্তান ও স্ত্রীর মুখে খাবার তুলে দেয়ার ক্ষমতা এখন তার নেই। পাঁচলাখ টাকা রৃনের বোঝা মাথায় নিয়ে যশোরের পুলিশ ক্লাব মাঠে দোকান দিয়েছেন। শুধু ইসমাইল নয়, করোনায় সহায় সম্বর হারিয়ে নিঃস্ব হওয়া আলম হোসেন, আরিফ হোসেন সহ অর্ধশত ক্ষতিগ্রস্থ দোকানীদের নিয়ে যশোরে চালু হয়েছে তাঁত,বস্ত্র, হস্ত, কুটির শিল্প পণ্যের বাজার। শুক্রবার বিকেল চারটায় শহরের গাড়িখানার পুলিশ ক্লাব মাঠে ফিতা কেটে ও বেলুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে এ বাজারের এ বাজারের উদ্বোধন করেন যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক সার্কেল) বেলাল হোসাইন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে তিনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ সারাদেশেই করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে। তার অংশ হিসেবে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সহযোগিতায় এ অস্থায়ী বাজার চালু করা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে দোয়ার আয়োজন করা হয়।
সরেজমিনে কথা হয় বাজারে আসা ক্রেতা মনিরুল ইসলাম, পাপিয়া রহমান, মৌ, সানজিদা সহ আরও কয়েকজনের সাথে। বাজারের খোলামেলা পরিবেশে ন্যায্য মুল্যে বিভিন্ন পন্য কিনতে পেরে তারা সাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। তারা পণ্যের যথাযথ মান ও দামের উপর কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিরাখার আহবান জানান।
কসমেটিক্স দোকানী জামিল হোসেন জানান, গত বছরের মার্চে এই মাঠেতে তিনটি স্টল নিয়ে তিনি দোকান দিয়েছিলেন। সকালে উদ্বোধন করা হলেও করোনার কারণে বিকেলে মাঠ বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো। দোকানে মালামাল কেনা ও ডেকরেশন দিয়ে তার সাতলাখ টাকা খরচ হয়েছিলো তার। দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকায় কসমেটিক্স মালামাল ও বিভিন্ন ব্যাগ নষ্ট হয়ে যায়। এতে তিনি পথে বসেন। আবারো একই মাঠ এবং একই স্থানে তিনি দোকান দিয়েছেন। স্বপ্ন দেখছেন নতুন জীবন গড়ার। একই ধরণের কষ্টের কথা বলেন, চটপট্টি ব্যবসায়ী রানা আহম্মেদ, জুতা ব্যবসায়ী আকাশ, রেটিমেট কাপড় ব্যবসায়ী তপু আহম্মেদ সহ অনেকে।
এ বিষয়ে আয়োজক প্রতিষ্ঠান আয়োজন ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শহিদুল ইসলাম চাঁন বলেন, ক্ষতি গ্রস্থ দোকানীদের সাথে নিয়ে এ বাজারে ব্লেজার, শাড়ি, থ্রি পিছ, ওয়ান পিছ, কসমেটিক্স, জুয়েলারী, বিভিন্ন প্রসাধনী, আসবাব পত্র, জুতা, স্যান্ডেল, বাঁচ্চাদের পোষাক, খেলনা, ছেলেদের টি শার্ট, চশমা, ঘড়ি, পানজাবী, ড্রাইফুড, চটপটি, ফুসকা, আচার সহ বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজানো হয়েছে। এছাড়া শিশুদের জন্য রাখা হয়েছে দৌদুল্যমান নৌকা ও ঘুরন্ত বিমান। তিনি সকলকে মাস্ক পড়ে বাজারে আসা ও স্বাস্থবিধি মেনে চলাচলের আহবান জানান।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও অংশ নেন, যশোর কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ তাজুল ইসলাম, আয়োজন ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের স্বত্বাধীকারী শিমুল ভূইয়া সহ অনেকে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here