বাংলা সাহিত্যে মাইকেল মধুসূদন দত্তের যে অবদান তা কোনদিন ভোলার নয় —-প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী

0
161

কেশবপুর (যশোর) ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি: কেশবপুরের সাগরদাঁড়িতে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের খুবই প্রয়োজন ছিলো। মাইকেল মধুসূদন দত্তের স্মৃতি বিজড়িত কপোতা নদকে বাঁচানোর মাধ্যমে মাইকেল মধুসূদন দত্তকে আমাদের মাঝে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। সাগরদাঁড়িতে আমাদের যে পর্যটন কেন্দ্রটি আছে তা আরো আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। কপোতা নদকে ঘিরে বাংলা সাহিত্যে মাইকেল মধুসূদন দত্তের যে অবদান তা কোনদিন ভোলার নয়। তিনি বাংলা ভাষায় ছনেট কবিতা লেখার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে প্রথম পরিচিত করে তোলেন। গতকাল রোববার দুপুরে কেশবপুরের সাগরদাঁড়ীর পর্যটক কেন্দ্র, মধুপল্লী, মধুমঞ্চন, কপোতানদ পরিদর্শন কালে বাংলাদেশ সরকারের বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী সাংবাদিকদের সংগে আলাপকালে একথা বলেন। প্রতিমন্ত্রীর সংগে বাংলাদেশ পর্যটন মন্ত্রনালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন ও বাংলাদেশ টুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহি পরিচালক জাবেদ আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। এসময়ে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন, থানার তদন্ত ওসি মতিয়ার রহমান, সাগরদাঁড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত, কেশবপুর উপজেলা প্রেসকাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, কেশবপুর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাবেয়া ইকবাল, উপজেলা প্রেসকাবের সদস্য নুরুজ্জামান প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here