মনোনয়ন পত্র ছিনিয়ে নেওয়া সহ পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ যশোরের শার্শায় ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি

0
121

বেনাপোল প্রতিনিধি : তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন ২৮ নভেম্বর। যশোরের শার্শা- বেনাপোলে জমে উঠেছে নির্বাচনি প্রচার প্রচারনা। ছড়াছড়ি বিদ্রোহী প্রার্থী।,ঘটছে অনাঙ্ক্ষিত ঘটনা। মনোনয়ন পত্র ছিনিয়ে নেওয়া সহ পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে যশোরের শার্শা উপজেলার গোগা ইউনিয়নে। চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীরা ঘুরছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে করছেন সমাবেশ। যশোরের শার্শা উপজেলার ১০টি ইউপি নির্বাচনে চার শতাধিক চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীরা মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেছেন,তবে এবার নতুন মুখের ছড়াছড়ি,সরকার দলীও প্রার্থী ছাড়া অন্য দলের প্রার্থীদের দেখা যায়নি নির্বাচনি এলাকায়, সব ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি। প্রার্থীরা ঘুরছেন ভোটারদের বাড়ি বাড়ি, চাচ্ছেন ভোট ও দোয়া, তবে চেয়ারম্যান প্রার্থীর থেকে মেম্বার প্রার্থীরাই সমর্থক কর্মিদের সাথে নিয়ে চষে বেড়াচ্ছেন মাঠ। চায়ের দোকান পাড়া মহল্যা ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান একই আলোচনা নির্বাচনী আমেজে ভরপুর।তবে এবার সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রার্থীরা বাড়িতে বাড়িতে যেয়ে করছেন ভোট প্রার্থনা। চেয়ারম্যান প্রার্থীরাও করছেন জনসংযোগ ও সমাবেশ। তবে এবার নৌকার প্রার্থীদের জয়ের সম্ভাবনা বেশী বলে জানান ভোটারারা। অনেক যায়গায় ঘটছে অনাঙ্ক্ষিত ঘটনা, মনোনয়ন কেড়ে নেওয়া,বাড়িতে গিয়ে হুমকি, মনোনয়ন পুড়ানো,শারিরীক লাঞ্চনাসহ গুরুতর অভিযোগ উঠেছে শার্শার গোগার ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বর প্রার্থী মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে। মা বোনদের জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন সহ আর্তসামাজিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি, এবার নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে জনগনের পাশে থেকে কাজ করার আশাবাদ ব্যাক্ত করেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রার্থী লিলি বেগম। তবে মনোনয়ন পত্র ছিনিয়ে নেওয়া ও অগ্নিসংযোগের ঘটনাটি পরিকল্পিত বলে জানান মেম্বার প্রার্থী মিজানুর রহমান। ঘটনাটি ষড়যন্ত্র ও প্রতিপক্ষের অপপ্রচার বলে দাবি করেন তিনিসহ তার সমর্থকেরা। নিয়ম মেনেই চলছে মনোনয়ন গ্রহন ও জমাদান। নির্বাচনী বিধি লঙ্ঘন সহ কোন অপ্রীতিকর ঘটনার অভিযোগ পাননি বলে জানান উপজেলা রিটার্নিং অফিসার মেহেদী হাসান। এলাকার একাধিক উন্নয়ন হওয়ায় পছন্দের প্রার্থী ও নৌকাকে নির্বাচিত করতে চান স্থানীয়রা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here