কলারোয়ায় প্রবাসী বোনের ছেলের বিভিন্ন অভিযোগ তুলে সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে ছোট বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে অপর দুই বোন

0
86

সেলিম রেজা মুকুল সাতক্ষীরা ব্যুরো প্রধান ঃ সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ছোট বোন পরুল খাতুন কর্তৃক প্রবাসী সেজো বোনের ছেলেকে মাদকাসক্তসহ নানা মিথ্যা অভিযোগ তুলে সাংবাদিদের ভুল বুঝিয়ে সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে আপন বড় দুই বোন। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসকাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে উক্ত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন, উপজেলার শুভংকরকাঠী গ্রামের মনজুয়ারা খাতুন ও ফারজানা খাতুন। সংবাদ সম্মেলনে দুই বোনের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, মনজুয়ারা খাতুন।
লিখিত বক্তব্যে তারা বলেন, আমাদের আপন ছোট বোন পারুল খাতুন গত ২৫-১০-২১ তারিখে সাংবাদিকদের ভুল বুঝিয়ে আমাদের প্রবাসী সেজো বোন আনজুয়ারার একমাত্র পুত্র সন্তানকে মাদকাসক্ত, দোকান কিনে দেওয়া, মিথ্যা মামলা, জবর দখল ও আমাদের প্রবাসী বোনের কোন জমি জায়গা নাই বলে যে মিথ্যা ও মানহানিকর তথ্য তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার আমরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তারা বলেন, আমাদের সেজো বোন আনজুয়ারা খাতুন প্রবাসে যাওয়ার সময় ১৩ বছরের একমাত্র পুত্র সন্তানকে আমাদের কাছে রেখে যায়। আনজুয়ারার বাড়িতেই আমাদের মা তার নাতি রাকিবুল ইসলাম ইমনকে দেখাশুনা করতেন। রাকিবুল ইসলাম যখন ঢাকায় পড়তে যায় তখন মাকে দেখাশুনা করার জন্য আমার আর এক বোন সাবিনাকে প্রবাসী বোন আনজুয়ারার বাড়িতে আশ্রয় দেন। সাবিনা থাকাকালিন আমার অন্য বোন পারুল ও তার স্বামী আব্দুল আজিজ ওই বাড়িতে এসে ওঠেন। পরে সাবিনা সেখান থেকে চলে যান। এরপর বোন পারুল ও তার স্বামী আব্দুল আজিজ আদম পাচার, প্রতারণা, টাকা আত্মসাৎ সহ বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িয়ে পড়েন। আর তাদের এই কাজে সহযোগিতা করতেন আমাদের ভাই আবুল হাসান। একপর্যায়ে প্রবাসী বোন ও তার পুত্র এ বিষয়টি জানতে পেরে গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিদেরকে নিয়ে পারুল ও তার স্বামী আজিজকে আনজুয়ারার বাড়ি থেকে নামিয়ে দেন। এরই জেরে তারা পারুল, তার স্বামী আব্দুল আজিজ ও ভাই আবুল হাসান প্রবাসী বোন আনজুয়ারার জমি জায়গা ও ঘর দখলের চক্রান্তে লিপ্ত হন। প্রবাসী বোনের একমাত্র পুত্রকে উস্কানিমূলক কর্মকান্ডসহ প্রাণনাশের হুমকিও দিয়ে আসছিলেন। একপর্যায়ে তারা গত ১৬-১০-২১ তারিখে রাকিবুল ইসলামকে আক্রমণ করে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করেন। এ ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য ইমনের বিরুদ্ধে তারা শ্লীলতাহানীসহ মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে তাকে ফাঁসানোর জন্য সাংবাদিকদের ভুল বুঝিয়ে একটি মিথ্যা সংবাদ সম্মেলন করেছেন। মূলত তাদের কোন লিগ্যাল কাগজপত্র না থাকায় তারা আমার প্রবাসী বোনের ছেলেকে মাদকাশক্ত এবং পারুলের দোকান ইমনের নামে লিখে দিয়েছে বলে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছেন। আমার প্রবাসী বোন আনজুয়ারা তার একমাত্র পুত্র সন্তানকে দোকান ক্রয় করে দেয় যার লিগ্যাল কাগজপত্র ইমনের কাছে আছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। তারা আরো বলেন, রাকিবুল ইসলাম ইমন আমাদের খুব আদরের সন্তান তার নম্রতা ও ভদ্রতার জন্য তাকে আমরা অনেক ভালবাসি ও স্নেহ করি। যাকে কেউ কখনো একটা সিগারেট মুখে নিতেও দেখেনি তাকে নিয়ে আমার বোন পারুল, তার স্বামী আব্দুল আজিজ ও ভাই আবুল হাসান মাদকাসক্তসহ যে বিভিন্ন প্রকার অপবাদ এবং আমার প্রবাসী বোন আনজুয়রার কোন জমিজমা নাই বলে যে মিথ্যাচার করে সংবাদ সম্মেলন করেছে আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সংবাদ সম্মেলন থেকে তারা এ সময় তাদের প্রবাসী বোনের পুত্র ইমন যেন শুষ্ঠু বিচার পান ও তার মায়ের ভোগদখলীয় জমিতে সে যেন নিরাপদে বসবাস করতে পারে সে জন্য সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসকসহ উদবর্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here