চৌগাছায় বিধবার ধানী জমি থেকে জোরপূর্বক মাটি কেটে নেওয়ার অভিযোগ

0
17

চৌগাছ প্রতিনিধি : যশোরের চৌগাছায় এক বিধোবার ধানী জমি থেকে জোরপূর্বক মাটি কেটে নেওয়ার অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগি নারী। উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের মাঠে বিধবার তাছলিমার উনচল্লিশ শতক ধানী জমি থেকে মাঠি কেটে ভাটার বিক্রি অভিযোগ করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একই গ্রামের আব্দুর রহিমের বিরুদ্ধে। লিখিত অভিযোগে সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের মৃত আনিচুর রহমানের স্ত্রী তাছলিমা খাতুন একই গ্রামেরআব্দুর রহিম, পিতা মো. হাশেম আলীর কাছে উনচল্লিশ শতক ধানী জমি বছরে আট হাজার টাকায় ধান চাষ করার জন্য লিজ বন্ধক দেয়। যার মৌজা নং ৮০, দাগ নং ৬৩০, হাল ১১০১ এবং খতিয়ান নং ১০৯ । কিন্তু আব্দুর রহিম এ জমি থেকে ভাটার মালিকদের কাছে ছয়শত টাকায় চুক্তিতে ট্রাক হিসেবে মাটি বিক্রি করে দেয়। তারা এ জমি থেকে স্কেমিটার দিয়ে প্রায় পাঁচ ফুট গভির করে মাটি কর্তন করেছে। ফলে এ জমিটি সম্পুন্নভাবে চাষাবাদের অনুপযুক্ত হয়ে যড়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। লিখিত অভিযোগে তাছলিমা খাতুন আরো বলেন, আমি তাকে জমিতে মাটি ভরাট করে দেয়ার কথা বললে তিনি আমার সাথে চরম দুর্ব্যবহার করছেন। এমনকি গ্রামের লোকজনের মাধ্যমে বিভিন্নভাবে আমার প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছেন। তাই আমি ন্যায় বিচার চেয়ে ইইএনও মহোদয়ের কাছে অভিযোগ করেছি। অভিযুক্ত আব্দুর রহিমের মোবইল ফোনে যোগাযোগের জন্য কল দিলেও তিনি ফোন ধরেননি। ইউএনও ইরূফা সুলতানা বলেন, দুপুরের দিকে এ বিষয়ে একটি অভিযোগ আমার কাছে নিয়ে এসেছিলেন। এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে আমি নির্দেশ নিয়েছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here