গোল আলু থেকে গোলাপ গাছের চারা তৈরি

0
138

মালিুকুজ্জামান কাকা, যশোর : তরিতরকারি, ফল কিম্বা ফুল বাহারি কৃষি পণ্যের আধার বাংলাদেশ। এমনকি রাজধানী ঢাকা বা সিটি কর্পোরেশন এলাকায়ও ছাদে বা পতিত জমিতে ফুল তরিতরকারি অথবা ফলের চাষ হচ্ছে। এই কৃষি পণ্য চাষাবাদ ও উৎপাদন যশোরেও ছড়িয়েছে বহু মাত্রায়। কৃষিতে বহু বিধ ব্যবহার হচ্ছে বাংলাদেশে। এমনি একটি প্রক্রিয়া আলু থেকে গোলাপের চারা তৈরি। চারা সঙ্কটে ভুগতে থাকা কৃষক তা থেকে মুক্তি পেতে পারে। ভালো জাতের একটি গোলাপ চারার খোজে মানুষ সঙ্কটে ঘুরতে থাকে বিভিন্ন স্থানে। তারপরেও তারা হয় প্রতারিত। আর চারা পেলেও তা বাঁচাতে বা রক্ষায় নাজেহাল হতে হয় চাষীকে। শখের বশেও অনেকে গোলাপ ফুল চাষ করেন। ছাদে বা বাসা বাড়ির পতিত জমিতেও ছেলে মেয়েরা গোলাপ ফুল চাষ করে। শহর, শহরতলী বা গ্রামে সর্বত্র এসব সমস্যার সমাধানে এবার গোল আলু থেকে গোলাপ কলম তৈরি হচ্ছে। এক্ষেত্রে নিয়মটি এই, প্রথমে একটি সবুজ গোলাপ কান্ড বেছে নিন। যেটা কিছুদিন বেঁচে থাকবে এমন তাজা কান্ড বাছাই করে নিতে হবে। ফুল গাছের চারা পাওয়া না গেলে কলম করা যায় অনায়াসে। যেমন আপনার কাছে যদি গোলাপের চারা না থাকে। তাহলে একটি ডাল এনে আলুর মধ্যে বসিয়ে কলম করে নিতে পারেন। এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। চেষ্টা করে দেখুন না হয়। আলু থেকে পেয়ে যাবেন পুরো একটি গোলাপ গাছ। প্রথমে গোলাপ গাছের একটি ডাল নিন। যেটা কিছুদিন বেঁচে থাকবে। এরপর গোল আলু, প্লাস্টিকের বোতল, মাটি, ছুরি এবং ছোট একটি পাত্র বা টব নিন। এরপর শুরু হয়ে যাক আপনার গোলাপ চাষের কার্যক্রম।
ছুরি দিয়ে কান্ডের বাড়তি পাতাগুলো সাবধানে কেটে ফেলুন। যাতে মূল কান্ডের কোন তি না হয়। এরপর আলুর মাঝ বরাবর একটি ছোট্ট ছিদ্র করুন। সেই গর্তে গোলাপের ডালটি বসিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন ডালটি যেন আলুর মধ্যে শক্তভাবে আটকে থাকে। যাতে কান্ড বেঁকে বা ভেঙে না যায়। মাটিতে গর্ত করে সেখানে গোলাপের ডালসহ আলুটি রেখে মাটি দিয়ে ঢেকে দিন। অথবা টব সাজিয়ে নিতে পারেন। সেেেত্র পাত্রের এক চতুর্থাংশ মাটি দিয়ে ভরে নিন। প্রয়োজনে খুরপি দিয়ে ভালোভাবে মাটি ভরুন। এবার আলুটিকে পাত্রের মধ্যে বসিয়ে দিন। আরও কিছু মাটি আলুর ওপরে দিয়ে পাত্রটি ভরিয়ে ফেলুন। রোপণের জন্য খোলা জায়গা না পেলে সেেেত্র বোতলটিকে কেটে দুই ভাগ করে নিন। এখন কাটা বোতলের নিচের অংশকে ব্যবহার করতে পারেন। এরপর ডালটির উপরের দিকে বোতলের উপরের অংশ দিয়ে ঢেকে দিন। খেয়াল রাখতে হবে যেন বোতলের মুখ খোলা থাকে। এক সপ্তাহ মত অপো করুন। নিশ্চয়ই পজেটিভ রেজাল্ট পাবেন। রোপণের পর থেকে এক সপ্তাহ অপো করুন। দেখবেন আপনার গোলাপ গাছটি দ্রুত বড় হচ্ছে। এভাবে ঘরোয়া পদ্ধতিতে নিজের গোলাপের কান্ডে নতুন গোলাপ ফোটাতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here