প্রেমিকার পরিবারকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফাঁসলেন প্রেমিক

0
24

নিজস্ব প্রতিবেদক: ফেসবুকে পরিচয়। এরপর প্রেম। সেই সম্পর্কের টানাপোড়েনে ক্ষেপে উঠে প্রেমিক। তাই প্রেমিকার পরিবারকে জব্দ করতেই প্রশাসনকে বাল্যবিয়ের ভুয়া অভিযোগ দেয় প্রেমিক নাইমুর রহমান (১৯)। এমন অভিযোগ পেয়েই তাৎক্ষণিক প্রেমিকার বাড়িতে হাজির হয় প্রশাসন। কিন্তু সেখানে বিয়ের কোনো আলামত না পাওয়ায় কালীগঞ্জ সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুল্লাহ হাবিব ওই যুবককে ডেকে এনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। 
নাইমুর মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর গ্রামের মুক্তার আলীর ছেলে। বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌর এলাকার কাশীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুল্লাহ হাবিব জানান, বৃহস্পতিবার বিকালের দিকে নাইমুর রহমান নামে এক যুবক মোবাইল ফোনে তাকে জানায় কাশীপুর গ্রামে ৮ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ের আয়োজন চলছে। এমন খবর পেয়েই তিনি তাৎক্ষণিক পুলিশ ফোর্স নিয়ে ওই বাড়িতে হাজির হন। কিন্তু সেখানে গিয়ে দেখতে পান বিয়ের প্রস্তুতি বা কোনো আলামতই নেই। এরপর তিনি ভুয়া অভিযোগকারীকে মেয়ের বাড়িতে আসতে বলেন। এর কিছু সময়ের মধ্যেই নাইমুর হাজির হয়। কিন্তু সে তার দেওয়া অভিযোগের কোনো সত্যতা বা প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হয়। 
তিনি আরও জানান, ভুয়া অভিযোগের বিষয়ে যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে স্বীকার করে ফেসবুকে প্রেমের সম্পর্কের প্রতারণার জেরেই সে মেয়ের পরিবারকে জব্দ করতে এমন কাজটি করেছে। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন ২০১৭ অনুযায়ী নাইমুরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here