মণিরামপুরে তিনস্থানে সড়ক দূর্ঘটনায় ভারতীয় নাগরিকসহ তিনজন নিহত

0
29

হেলাল উদ্দিন, রাজগঞ্জ প্রতিনিধি : ভারত থেকে যশোরের কেশবপুরে মামা বাড়িতে বেড়াতে আসার সময় ট্রাক চাপায় এক কিশোরসহ পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় মণিরামপুরে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ মে-২০২২) দুপুরে, বিকেলে এবং সোমবার (২৩ মে-২০২২) দিবাগত রাতে পৃথক দুর্ঘটনায় তাঁদের মৃত্যু হয়।
দুর্ঘটনা গুলো ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার রাজগঞ্জের শাহাপুরে, এ দিন বিকেলে হরিহরনগরের তেঁতুলিয়া মোড় ও সোমবার দিবাগত রাতে রাজগঞ্জ-চাঁচড়া সড়কের কালাবাঘা মোড়ে।
সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- ভারতের চব্বিশপরগোনা জেলার গাইঘাটা উপজেলার বৈকারা গ্রামের নিরঞ্জন দাসের ছেলে সৌমেন দাস (১৫), চৌগাছা ফুলসারা গ্রামের আনারুল ইসলাম (৪৫) ও মণিরামপুরের মথুরাপুর গ্রামের মৃত হায়দার তরফদারের ছেলে রাসেল কবির (৩২)।
তাঁদের মধ্যে সৌমেন দাস ও আনারুল ট্রাক চাপায় এবং রাসেল কবিরের মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে।
নিহত সৌমেন দাস ভারতের একটি বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র, আনারুল ইসলাম মোটরসাইকেল ব্যবসায়ী এবং রাসেল কবির মাছ ও খামার ব্যবসায়ী।
নিহত কিশোরের বাবা নিরঞ্জন দাস বলেন- মঙ্গলবার সকালে বেনাপোল সীমান্ত হয়ে আমি, আমার ছেলে সৌমেন, আমার এক ভাই, তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে আমরা পাঁচজনে বাংলাদেশে প্রবেশ করি। এরপর একটা ইজিবাইক যোগে আমরা কেশবপুর বাজারের পাশে ছেলের মামার বাড়িতে যাচ্ছিলাম। সৌমেন সামনে চালকের পাশে বসে ছিল। ইজিবাইক শাহপুরের অদূরে মোড় ঘুরতে গেলে রাস্তায় পড়ে যায় সৌমেন। তখন একটি ট্রাক এসে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে মারা যায় ছেলেটি।
এদিকে দুর্ঘটনায় দায়ী ঘাতক ট্রাকটি পুলিশের হাতে আটক হলেও চালক ও হেলপার পালিয়েছেন।
হরিহরনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন ধর বলেন- আনারুল মোটরসাইকেল ব্যবসায়ী। মঙ্গলবার রাজগঞ্জ থেকে ফেরার পথে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে তেঁতুলিয়া মোড়ে বিপরীত দিক থেকে আসা সিমেন্ট বোঝাই একটি ট্রাকের চাপায় তিনি মারা গেছেন।
রিপন ধর বলেন- এ ঘটনায় দায়ী ট্রাক ও চালক বিপ্লব হোসেনকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে দিয়েছেন।
এদিকে রাসেল কবিরের প্রতিবেশী আরিফুল ইসলাম বলেন- সোমবার রাত ৮টার দিকে বাড়ি থেকে নিজের মোটরসাইকেল চালিয়ে যশোর শহরে যাচ্ছিলেন রাসেল। পথিমধ্যে রাজগঞ্জ-চাঁচড়া সড়কের হরিনার বিলের কালাবাঘা চার রাস্তার মোড়ে পৌঁছুলে পূর্বদিক থেকে একটি মোটরসাইকেল এসে রাসেলের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন রাসেল। পরে তাঁকে খুলনা নেওয়ার নেওয়ার পথে রাত দশটার দিকে তিনি মারা যান। আরিফুল ইসলাম বলেন- আইনী প্রক্রিয়া সেরে মঙ্গলবার বিকেলে পারিবারিক কবরস্থানে রাসেলের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
মণিরামপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জিয়াউল হক, রাজগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বানী ইসরাইল ও ঝাঁপা ক্যাম্পের ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) সামনুর মোল্লা সোহান পৃথক ৩ সড়ক দুর্ঘটনার ৩ জনের মৃত্যুর বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here